ইতালির ভেনিসে শুরু হলো বাংলাদেশী ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল : চলবে ২৮ আগস্ট পর্যন্ত

Posted on by

নিউজ লাইফ লন্ডন ডেস্ক : Ritratti di Comunità ” অর্থাৎ সম্প্রদায় প্রতিকৃতি শিরোনামে ইতালির সাগর কন্যা ভেনিসে মাসব্যাপী বাংলাদেশী চলচ্চিত্র প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। গত ২৪ জুলাই শনিবার ভেনিস সিটি কর্তৃক প্রচারিত ফিল্ম কমিশন ফাউন্ডেশনের পৃষ্ঠপোষকতায় এবং ভেনিস বাংলা স্কুল, একতারা ইন্টারন্যাশনাল ও ম্যাড স্যুটকেসের যৌথ উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।স্থানীয় এম নাইন মিউজিয়াম হলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আয়োজিত এ প্রদর্শনী উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভেনিসের সংস্কৃতি বিষয়ক প্রধান পৃষ্ঠপোষক পাওলা মার,এম নাইন মিউজিয়াম এর প্রেসিডেন্ট লুকা মলিনারি ,তরুণ নির্মাতা কাজী টিপু , ভেনিস বাংলা স্কুলের প্রেসিডেন্ট সৈয়দ কামরুল প্রমুখ ।

এদিকে ভেনিসে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর মধ্যে দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রের ইতিহাসে সৃষ্টি হলো এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ।যা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্রাঙ্গনে বাংলা চলচ্চিত্র কে আরও একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে মনে করেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিরা ।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপচেপড়া দর্শকদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও বাংলাদেশের চলচ্চিত্র প্রদর্শনী উৎসব এর প্রচার ছিল কল্পনাতীত।এ উৎসব ঘিরে বিনোদন ও বাঁধ ভাঙা উচ্চাসের সৃষ্টি হয় উভয় দেশের নাগরিকদের মাঝে।
বাংলাদেশের ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল প্রদর্শনীর উদ্দেশ্যকে স্বাগত জানিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ভেনিসের সংস্কৃতি বিষয়ক প্রধান পৃষ্ঠপোষক পাওলা মার । ইতালি তথা ইউরোপের সকল নাগরিকের মাঝে এই চলচ্চিত্র প্রদর্শনী সামাজিক অন্তর্ভুক্তিতে উৎসাহ যোগাবে বলে মনে করেন তিনি ।
এম নাইন মিউজিয়াম এর প্রেসিডেন্ট লুকা মলিনারি অনুষ্ঠানে উপচে পড়া দর্শকদের ভিড় দেখে আবেগে আপ্লুত হয়ে বলেন এই উৎসবের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাস সকলের মাঝে পৌঁছানো সম্ভব হবে এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে দুই দেশের চলচ্চিত্রের ইতিহাস ও ঐতিহ্য পৌঁছে দিতে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করবে।

ভেনিস বাংলা স্কুল এর প্রেসিডেন্ট সৈয়দ কামরুল বলেন চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমে গড়ে উঠবে নবাগত প্রজন্ম এবং ইতালিয়ানদের মধ্যে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক এবং পারস্পরিক সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্প্রীতি।
ইতালির বলোনিয়া ডান্সট ইউনিভার্সিটি থেকে ফ্লিম এন্ড মিডিয়া’র উপর ডিগ্রিধারী তরুণ নির্মাতা একতারা ইন্টারন্যাশনাল প্রোডাকশনের কর্ণধার কাজী টিপু প্রবাসে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে এবং বাংলাদেশকে বিশ্বের মাঝে তুলে ধরতে এমন একটি আয়োজনের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করেন ।সবশেষে তিনি সকলকে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

২৪ জুলাই প্রদর্শিত হয়েছে মোহাম্মদ শিহাব উদ্দিন পরিচালিত ‘আগামীকাল’ ও কাজী টিপুর পরিচালিত ‘১৮ প্লাস’ ।এ উৎসব চলবে ২৮ অগাস্ট পর্যন্ত। জনগণের সঙ্গে চলচ্চিত্র ইতিহাসের সেতুবন্ধন স্থাপনের লক্ষ্যে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক মাসব্যাপী এ প্রদর্শনী প্রতি শনিবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।

তথ্য : tv19online.com

More News from ইউরোপ

More News

Developed by: TechLoge

x