ডাক্তার হয়েছেন তো কি হয়েছে বলেই চিকিৎসক পেটালেন পাংশা থানার ওসি!

Posted on by

ডিউটি শেষে হাসপাতাল থেকে ফেরার পথে এক ডাক্তারকে পিটিয়েছে আহত করেছেন রাজবাড়ী পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো: আহসান উল্লাহ। পাংশা উপজেলা কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার হিসেবে কর্মরত ডা. সুপ্রভ আহমেদ জরুরী ডিউটি শেষে ফিরছিলেন। পথে ভ্যানের গতিরোধ করেন পাংশা থানার ওসি আহসান উল্লাহ। সেসময় ডা. সুপ্রভ তার পেশাগত পরিচয় দেন ।


ওই ডাক্তারের পরিচয় পাওয়ার পর অশালীন বক্তব্য করতে থাকেন পাংশা থানার অফিসার ইনচার্জ। একপর্যায়ে নির্যাতনের শিকার চিকিৎসক ওসিকে জানান, তিনি জরুরী সেবায় নিয়োজিত এবং ডিউটি শেষে ফিরছেন। তখন পাংশা থানার ওসি বলেন, ডাক্তার হয়েছেন তো কি হয়েছে। বলেই ওই ডাক্তারকে লাঠি দিয়ে পায়ে আঘাত করেন। সোস্যাল মিডিয়ায় এই ঘটনার বিবরণ দিয়ে বিচার চেয়েছেন ৩৯ তম বিসিএসে নিয়োগপ্রাপ্ত রাজবাড়ির এই মেডিকেল অফিসার।


এ ব্যাপারে রাজবাড়ি থানার ওসির সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। সোস্যাল মিডিয়ায় ডাক্তার পেটানোর এই ঘটনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। জরুরী সেবায় নিয়োজিত একজন সরকারী কর্মকর্তাকে পেটানোর ঘটনায় নেটিজেনরা বেশ চটেছেন। পরিচয় জানার পর ওসির এমন কান্ডে ক্ষোভ জানিয়েছে ডাক্তার থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষও। করোনা মোকাবেলায় সবাইকে ঘরে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তবে জরুরী সেবায় নিয়োজিতরা এই আদেশের বাহিরে।
আর তাছাড়া মানুষকে ঘরে রাখতে পেটানোর কোন বিশেষ ক্ষমতা পুলিশকে দেয়া হয়নি। করোনার এই মরণঘাতির সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চিকিৎসকরা দিনরাত মানুষকে সেবা দিচ্ছেন। করোনায় আক্রান্তদের সেবা দিতে গিয়ে ১ জন চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত। দেশের বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী হাসপাতালের অন্তত ৭০ জন ডাক্তার ও নার্স হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এমন সময়ে একজন সরকারী হাসপাতালের ডাক্তার পেটানোর ঘটনায় তোলপাড় সোস্যাল মিডিয়া। অভিযুক্ত ওসির বিচার চেয়ে সরগরম সোস্যাল মিডিয়া।

Leave a Reply

More News from অন্য রকম

More News

Developed by: TechLoge

x