পাপিয়া দম্পতির অর্থের তথ্য জানতে ৫৯টি ব্যাংকে চিঠি

Posted on by

নরসিংদী মহিলা যুবলীগের বহিষ্কৃত নেত্রী শামিমা নূর পাপিয়া এবং তার স্বামীর অর্থের তথ্য জানতে দেশি-বিদেশি ৫৯টি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কাছে চিঠি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।রবিবার (৮ মার্চ) দুদকের উপ-পরিচালক শাহিন আরা মমতাজ স্বাক্ষরিত চিঠিটি ব্যাংকগুলোতে পাঠানো হয় বলে দুদক সূত্রে জানা গেছে।অপরদিকে থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়ায় এই দম্পতির বাড়ি ও ব্যাংক হিসাবের তথ্য জানতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট বিএফআইইউ-এর কাছে আলাদা চিঠি পাঠানো হয়েছে। দেশি-বিদেশি ৫৯টি ব্যাংকের কাছে পাপিয়া দম্পতির নিজ, যৌথ, তাদের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের নামে খোলা চলতি হিসাব, মেয়াদি আমানত, কেওয়াইসি ফরম ও এসব ক্ষেত্রে আর্থিক বিবরণ চাওয়া হয়েছে।চিঠিতে জরুরি ভিত্তিতে ওইসব তথ্য সংগ্রহ ও যাচাই করে দুদকের কাছে পাঠাতে বলা হয়েছে।এর আগে গত ২ মার্চ ওয়েস্টিন হোটেলে পাপিয়ার গেস্টদের নাম ও যাবতীয় বিল-ভাউচারের কপি চেয়ে হোটেল কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি দেয় দুদক।

উল্লেখ, গত ২২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে জাল টাকা বহন ও টাকা পাচারের অভিযোগে পাপিয়াসহ চারজনকে গ্ররফতার করে র‍্যাব। বাকিরা হলো পাপিয়ার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরী ওরফে মতি সুমন (৩৮), সাব্বির খন্দকার (২৯) ও শেখ তায়্যিবা (২২)।র‍্যাব অভিযান চালিয়ে ১টি বিদেশি পিস্তল, ২টি পিস্তলের ম্যাগজিন, ২০টি পিস্তলের গুলি, ৫ বোতল দামি বিদেশি মদ, ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, ৫টি পাসপোর্ট, ৩টি চেকবই, কিছু বিদেশি মুদ্রা, বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি ভিসা ও এটিএম কার্ড উদ্ধার করে।র‍্যাব জানায়, পাপিয়া ও তার স্বামীর মালিকানায় ইন্দিরা রোডে ২টি ফ্ল্যাট, নরসিংদীতে ২টি ফ্ল্যাট ও ২ কোটি টাকা দামের ২টি প্লট, তেজগাঁওয়ে এফডিসি ফটকের কাছে গাড়ির শোরুমে ১ কোটি টাকার বিনিয়োগ ও নরসিংদী জেলায় একটি প্রতিষ্ঠানে ৪০ লাখ টাকার বিনিয়োগ আছে।এই শামীমা নূর পাপিয়া হচ্ছেন নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক। পাপিয়া ২০১০ সালে নরসিংদী শহর ছাত্রলীগের আহ্বায়ক ছিলেন।

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x