আন্দোলনেই খালেদা জিয়ার মুক্তির পথ দেখছে বিএনপি

Posted on by

বারবার জামিন আবেদন করেও না হওয়ায় কারা হেফাজতে চিকিৎসাধীন দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির পথ আন্দোলনেই দেখছে বিএনপি। আইনি প্রক্রিয়ায় তার মুক্তি সম্ভব না হওয়ায় বৃহত্তম গণআন্দোলন গড়ে তোলে নেত্রীকে মুক্ত করার কথা বলেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।তিনি বলেন, ‘আমরা জনগণের কাছে যাচ্ছি এবং তাদের ঐক্যবদ্ধ করার কাজ করছি। আমি বিশ্বাস করি যে, জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে গণতন্ত্রের নেতা খালেদা জিয়া মুক্ত হবেন।জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা জানানো শেষে তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।মির্জা ফখরুল বলেন, তারা আজকে শুধু রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে খালেদা জিয়াকে আটকে রেখেছে। রাজনৈতিক কারণেই প্রাপ্য জামিনটা পর্যন্ত তাকে দিচ্ছে না।

খালেদা জিয়াকে গণতন্ত্রের মুক্তির নেতা উল্লেখ করে দলটির মহাসচিব বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে আমরা মনে করি তিনি শুধু বিএনপি নেতা নন, তিনি সমগ্র দেশের মানুষের মুক্তির নেতা। তিনি গণতন্ত্রের মুক্তির নেতা। সেই কারণে তার অসুস্থতা আমাদের সবাইকে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন করেছে এবং আমরা চেষ্টা করছি দুই বছর ধরেই তাকে একদিকে আইনগতভাবে, অন্যদিকে রাজনৈতিকভাবে মুক্ত করর জন্য। এই ভয়াবহ ফ্যাসিস্ট সরকার, যারা সব মানবিক বোধকে ধ্বংস করে দিয়েছে, তারা আজকে শুধু রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে আটকে রেখেছে। রাজনৈতিক উদ্দেশেই তারা বেগম খালেদা জিয়াকে যেটা তার প্রাপ্য জামিন, সে জামিন তারা দিচ্ছে না।খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আন্দোলনের কথা তুলে ধরে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা জনগণের কাছে যাচ্ছি। জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করার কাজ করছি। আমরা বিশ্বাস করি জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়েই তিনি মুক্ত হবেন।বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপি কেন্দ্রীয়ভাবে সোমবার (২ মার্চ) বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এবং সারা দেশে জেলা সদরে মানববন্ধন করবে বলেও জানান মির্জা ফখরুল।এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির মৎস্যবিষয়ক সম্পাদক লুৎফর রহমান কাজল, মৎস্যজীবী দলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম মাহতাব, সদস্য সচিব আবদুর রহিম, তাঁতী দলের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদসহ প্রমুখ।

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x