এবার চতুর্থ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের জন্য বাজাবেন পণ্ডিত সুদর্শন

Posted on by

তিনটি বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন ইতিমধ্যে। এবার চতুর্থ রেকর্ড গড়ার চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন পণ্ডিত সুদর্শন দাশ। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তবলা বিশারদ সুদর্শন আগামী ৮ জুলাই সোমবার তাঁর চতুর্থ রেকর্ডসের লক্ষ্যে বাজানো শুরু করবেন। টানা ১৪০ ঘন্টা বাজাতে পারলেই স্বীকৃতি মিললে গ্রিনেস ওয়ার্ল্ডস রেকর্ডস কর্তৃপক্ষের।

পণ্ডিত সুদর্শন এবার যে বিষয়ে রেকর্ড গড়ার চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন সেটির আনুষ্ঠানিক নাম “লংগেস্ট ম্যারাথন ড্রামিং বাই এন ইন্ডিভিজুয়াল”। ৮ জুলাই সোমবার স্থানীয় সময় বিকাল ৫টায় পূর্ব লন্ডনের লন্ডন এন্টারপ্রাইজ একাডেমিতে তিনি বাজানো শুরু করবেন। সেখানে হবে এক উদ্বোধনী আয়োজন। এতে যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম এবং টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পীকার ভিক্টোরিয়া ওভেজ উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া লন্ডন-বাংলা প্রেসক্লাবের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এমদাদুল হক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুবায়ের সহ প্রেসক্লাবের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ এবং কমিউনিটির বিশিষ্টজনরাও এতে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

অনুষ্ঠানটি সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। বাজানোকালীন সময়ে যে কেউ চাইলে ভেন্যুতে গিয়ে সেটি উপভোগ করতে পারবেন।

চট্টগ্রামের সন্তান পণ্ডিত সুদর্শন এবারের চ্যালেঞ্জটি উৎসর্গ করেছেন শরণার্থী শিশুদের। তিনি অনাথ শিশুদের জন্য ৩ হাজার পাউন্ড সংগ্রহের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন। এ জন্য অনলাইনে জাস্ট গিভিং পেইজে এ নিয়ে একটি আপিল চালু করা হয়েছে। যে কেউ চাইলে অনলাইনে গিয়ে এতে ডোনেশন দিতে পারবেন। সংগৃহীত অর্থ জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউনিসেফকে দেয়া হবে।

চট্টগ্রামের সন্তান সুদর্শন দাশ এর আগে তিনটি গিনেস রেকর্ড গড়েছেন। এরমধ্যে তাঁর প্রথম রেকর্ড ‘লংগেস্ট তবলা ম্যারাথন’ এর জন্য বাজিয়েছেন টানা ৫৫৭ ঘন্টা ১১ মিনিট। দ্বিতীয় রেকর্ড ‘লংগেস্ট ঢোল ম্যারাথন’ এর জন্য বাজান টানা ২৭ ঘন্টা। আর তৃতীয় রেকর্ড ‘লংগেস্ট ইন্ডিভিজ্যুয়াল ড্রাম রোল’ এর জন্য বাজান টানা ১৪ ঘন্টা।

পণ্ডিত সুদর্শন বলেন, তাঁর লক্ষ্য ছিল তিনটি রেকর্ড গড়া। চাইলেই গিনেস রেকর্ডস কর্তৃপক্ষ অংশগ্রহণের অনুমোদন দেয় না। যে কারণে তিনি চারটি বিষয়ে আবেদন করে রেখেছিলেন। ওইসব আবেদনের তিনটি আগেই গৃহীত হয়। যেগুলো তিনি সাফল্যের সঙ্গে রেকর্ড গড়ে সম্পন্ন করেন। সম্প্রতি তাঁর চতুর্থ আবেদনটিও গিনেস কর্তৃপক্ষ গ্রহণ করেছে। তাই আরও একটি রেকর্ড গড়ার সুযোগ তিনি হাতছাড়া করতে চান না।

এবারের রেকর্ড গড়ার চ্যলেঞ্জ নিতে যে আয়োজন সেটি করেছেন মাইকেল ব্রড। আর ভেন্যু দিয়ে সহযোগিতা করেছে লন্ডন এন্টারপ্রাইজ একাডেমি। পণ্ডিত সুদর্শন এসব সহযোগিতার জন্য গভীর কৃতজ্ঞতা জানান। তাঁর বাজানো উপভোগ করতে কমিউনিটির সকলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। সেইসঙ্গে অনাথ শিশুদের জন্য নির্ধারিত তহবিল সংগ্রহে সকলকে উদার হস্তে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন তিনি।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x