ড: মুরসীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে

Posted on by

মিসরের কারান্তরীন প্রেসিডেন্ট ড: মুরসীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে । তিনি ছিলেন সকল স্বৈরচার , নিপীড়ক ও সাম্রাজ্যবাদের দাসদের জন্য আতংক । তাই মিসরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো একটি গ্রহনযোগ্য ও আন্তর্জাতিকভাবে নন্দিত নির্বাচনে বিপূল ভোটে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরও মাত্র এক বৎসরের মধ্যে সামরিক অভ্যূত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্ছুত করে তাঁকে কারান্তরীন করা হয়েছে ।শত শত ইখওয়ান নেতাকে ফাঁসির দন্ড দেয়া হয়েছে ।

হাজার হাজার ইখওয়ান নেতা কর্মিকে গ্রেফতার ও গুম করা হয়েছে । তাহরির স্কোয়ারে শত শত মানুষকে বুলডোজারে পিষ্ট করে হত্যা করা হয়েছে ।অথচ জাতিসংঘ থেকে শুরু করে মানবতা ও গনতন্ত্রের ধ্বজাধারীরা এ ব্যাপারে রহস্যজনক নিরব ভূমিকা নিয়েছে ।মুরসি জীবন দিয়েছেন কিন্তু নিপীড়নকারীদের ইচ্ছার কাছে মাথানত করেন নি ।
ড: মুরসী ইসলামের জাগরণের এক আপোষহীন অধ্যায় রচনা করে গেলেন ।

গতকাল ইন্টারন্যাশনাল সলিডারিটি ফরসহিউম্যান রাইটস এর উদ্যেগে শহীদ ড: মুরসি’র জীবন ও কর্মের উপর এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয় ।
অধ্যাপক আব্দুল কাদির সালেহ এর সভাপতিত্ব অনুষ্ঠিত এ সভায় বক্তব্য রাখেন ফররুখ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাওলানা রফিক আহমদ রফিক, হেফাজতে ইসলাম নেতা মাওলানা শায়খ সাঈদ আলী দশঘরী, দারুল আকরামের অন্যতম পরিচালক আবদাল আহমদ, বায়তুল মামুর একাডেমির ট্রেজারার মাওলানা তায়ীদুল ইসলাম,রাইট কনসার্ন ইউ কে’র সভাপতি মুহাম্মদ শফিক খান, সাংবাদিক নেতা বদরুজ্জামান বাবুল ,শিক্ষক ও গবেষক আজাবুল হক, সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মি আমিনুর রশীদ চৌধুরী, আলহুদা একাডেমির প্রধান শিক্ষক আনিসুর রহমান,ও মাওলানা জাকিউর রহমান ।

সভায় বক্তাগণ ড: মুরসীর পরিকল্পিত ও সিস্টিমেটিক হত্যার জন্য স্বৈরাচার সিসি কে দায়ী করে এর তীব্র নিন্দা জানান।
সভায় বলা হয় ,বিশ্বে ইসলাম পন্থীদের বিরুদ্ধে নিপীড়ন এবং নির্মূলের মাত্রা দেখেই বুঝা যায় তথাকথিত ভোগবাদী সভ্যতার দিন দ্রুতই ফুরিয়ে আসছে ।যুগে যুগে মুরসীদের যতই হত্যা করা হয় ইসলামের উত্থান এবং পুনর্জাগরণ ততই তরান্বিত হয়।

পরিশেষে জালিমের যিন্দানখানায় বন্দি ড: মুরসীকে শাহাদাতের উচ্চ মাকাম দান এবং মুসা নবীর দেশ মিসরে ফেরাউনের দোসরদের পতন কামনা করে দোয়া করা হয় ।
Bangla mail

Leave a Reply

More News from কমিউনিটি

More News

Developed by: TechLoge

x