‘মিথ্যা বলে যুদ্ধের জিগির তুলে ভোটে জিততে চেয়েছিল বিজেপি’

Posted on by

পাকিস্তানের যুদ্ধবিমান এফ-১৬ নিয়ে মার্কিন প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে এবার ভারতকে একহাত নিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

শনিবার এক টুইটবার্তায় ইমরান বলেন, সত্য সবসময় টিকে থাকে আর এটিই ভালো পলিসি। বিজেপি (ভারতীয় জনতা পার্টি) যুদ্ধের জিগির তুলে ভোটে জিততে চায়।

তাই তারা এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার দাবি করেছে। কিন্তু পাকিস্তানের এফ-১৬ বিমান ধ্বংস নিয়ে ভারতের দাবিকে মিথ্যা প্রমাণ করেছে আমেরিকা৷ মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়ে দিয়েছে, পাকিস্তানের একটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমানেরও কোনো ক্ষতি হয়নি।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তান সীমান্ত বালাকোটে ভারতের বিমান হামলায় বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদের ৩০০ জন নিহত হয়েছে বলে দাবি জানায় ভারত সরকার।

যদিও এ দাবির পক্ষে কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেনি নয়াদিল্লি। তবে এ ঘটনার পাল্টা জবাবে পাকিস্তানও ভারতের অভ্যন্তরে বোমা হামলা করে।

সেই পাক অভিযানের জবাবে ভারতীয় বিমান বাহিনীর কয়েকটি যুদ্ধবিমান পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ঢুকলে ভারতের একটি যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করে পাক সেনা। বিমানটির পাইলটকেও আটক করে তারা।

এরপর ভারতীয় বিমান বাহিনী পাকিস্তানের একটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে বলে দাবি করে মোদি সরকার। কিন্তু সেই অভিযানে কোনো এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ব্যবহার করা হয়নি জানায় ইমরান খানের সরকার।

এদিকে ভারতীয় যুদ্ধবিমান মিগ-২১ ভূপাতিত করার প্রমাণ হিসেবে পাক কারাগারে আটক সেই বিমান পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ‘শান্তির বার্তা’ হিসেবে ফেরত পাঠায় পাকিস্তান।

কিন্তু পাক যুদ্ধবিমান এফ-১৬ ভূপাতিত করার দাবির পক্ষে কোনোই যুক্তি বা প্রমাণ দেখাতে পারেনি নরেন্দ্র মোদি। এবার ভারতের সেই দাবির সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলল একটি মার্কিন প্রতিবেদন।

মার্কিন সাময়িকী ‘ফরেন পলিসি’র ঐ প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, সম্প্রতি পাকিস্তানের কাছে বিক্রি করা সমস্ত এফ-১৬ যুদ্ধবিমান গুনে দেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। তারা সব কটি এফ-১৬ বিমান অক্ষত পেয়েছেন। সেখানে একটি যুদ্ধবিমানও কম পায়নি মার্কিন বিশেষজ্ঞরা।

সে অর্থে মোদি সরকার এতদিন পাক যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার যে দাবি করে আসছিল তার পুরোটাই ছিল মিথ্যা।
One Bangla

More News from আন্তর্জাতিক

More News

Developed by: TechLoge

x