তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নড়াইলে সংঘর্ষে আহত ২০

Posted on by

তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নড়াইলের কালিয়া উপজেলায় নৌকা ও আনারস প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ গুলিবর্ষণ করেছে বলে জানা গেছে।

রোববার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে নওয়াগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ গুলিবর্ষণ করেছে বলে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কেন্দ্র দখল নিয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণপদ ঘোষ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম হারুনার রশিদের সমর্থকদের মধ্যে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় উভয়পক্ষের কমপক্ষে ২০ জন আহত হন।
কালিয়া থানার এসআই শিমুল জানান, আহতদের কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৯ রাউন্ড গুলি চালায়। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

নড়াইলের তিন উপজেলায় এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ১৩ প্রার্থীর মধ্যে ১২ প্রার্থী নির্বাচনে লড়ছেন। কালিয়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বর্তমান চেয়ারম্যান খান শামিমুর রহমান ওছি ফেসবুকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণায় চেয়ারম্যান পদে ১২ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তার মধ্যে নড়াইল সদর উপজেলায় ৪, কালিয়ায় ৩ ও লোহাগড়ায় ৫ জন রয়েছে। ভাইস চেয়ারম্যান পদে পুরুষ ২৩, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন ১৫ প্রার্থী।
ভোটারসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলাপকালে কালিয়া ও লোহাগড়া উপজেলায় আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরাই বেশ শক্ত অবস্থানে রয়েছেন বলে জানা গেছে।
নড়াইল পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম জানান, ‘নির্বাচন উপলক্ষে সার্বিক নিরাপত্তার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।
Jugantor

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x