ক্ষমতায় এলে বিমান বাহিনীর জন্য আরও পরিকল্পনা আছে : প্রধানমন্ত্রী

Posted on by

নিউজ লাইফ ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য বিমানবাহিনীকে আধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন করে গড়ে তোলা হবে।

আজ বৃহস্পতিবার যশোরে বিমানবাহিনী একাডেমিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।বার্তা সংস্থা ইউএনবি এ তথ্য জানায়।শেখ হাসিনা বলেন,আমরা কারো সাথে যুদ্ধ চাই না।কিন্তু যদি কখনো আঘাত আসে তাহলে বাংলাদেশকে শত্রুমুক্ত করতে,আমাদের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে রক্ষা করার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি আমাদের থাকতে হবে।আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে প্রতিরক্ষা বাহিনীকে আধুনিক প্রযুক্তির সাথে দক্ষ করে গড়ে তোলা।যশোরে ওই অনুষ্ঠান থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চটগ্রামের পতেঙ্গায় জহুরুল হক বিমান ঘাঁটি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের ভিত্তিফলক উন্মোচন এবং আনুষ্ঠানিকভাবে ১০৫ অ্যাডভান্সড জেট প্রশিক্ষণ ইউনিটের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।শেখ হাসিনা বলেন,জাতির জনকের পররাষ্ট্রনীতি ছিল সবার সাথে বন্ধুত্ব, কারো সাথে বৈরিতা নয়।আমরাও এই নীতি বিশ্বাস করি।

বাংলাদেশকে আধুনিক ও সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য আত্মবিশ্বাস ও আত্মমর্যাদাবোধ নিয়ে দক্ষতার সাথে কাজ করার জন্য বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।বিমানবাহিনীর সকল সদস্যদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন,আত্মবিশ্বাস ও আত্মমর্যাদাবোধ একটি জাতিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে। আমি সকলের কাছ থেকে আশা করি,সততা ও দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে আপনারা দেশকে আরো আধুনিক ও সমৃদ্ধশালী করে গড়ে তুলবেন।আধুনিক সুবিধা সম্পন্ন বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সে একসঙ্গে ৬০০ ফ্লাইং ক্যাডেটের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে।এ ছাড়া এখানে ১১টি ভবন,আটটি ল্যাবরেটরি,৩০টি বিমান থাকার স্থানসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা রয়েছে।এর আগে সকালে প্রধানমন্ত্রী যশোরে বিমান ঘাঁটিতে পৌঁছালে তাকে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর একটি চৌকস দল গার্ড অব অনার প্রদান করে।অনুষ্ঠানে বিমানবাহিনীর প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত উপস্থিত ছিলেন।

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x