খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের চরম অবনতি, সরকার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করছে না: মির্জা ফখরুল

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ও পরিবারের সদস্যদের দেখা করতে না দেয়ায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যে বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ। দিন দিন তার স্বাস্থের অবনতি ঘটছে।কিন্তু সরকার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করছে না। আগে ১ সপ্তাহ পর পর পরিবারের সাথে দেখা করার সুযোগ থাকলেও এখন সেটিও দেয়া হচ্ছে না। তাই অবিলম্বে তাঁর পরিবারের সাথে সাক্ষাৎ করতে দেয়া হোক। কারণ দীর্ঘ দিন তাকে দল ও পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না।’

শনিবার (১২ মে) রাতে গুলশানে খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, ‘আমরা বা পরিবার দেখা করার অনুমতি চাইলে বলা হচ্ছে নিরাপত্তা জনিত করণে দেখা করার অনুমতি দেয়া যাচ্ছে না। কিন্তু তিনি তো কারাগারে সরকারের নিরাপত্তা বলয়ে আছেন, তাহলে কিসের নিরাপত্তা হুমকি আমাদের বুঝে আসে না। আমরা সরকারকে আহ্বান জানাই তাঁকে অন্তত তাঁর পরিবারের সাথে দেখা করার সুযোগ দিন।’

তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেয়ার পর থেকে তাঁর স্বাস্থ্যের অবনতি হয়েছে। এ নিয়ে সরকারের কোনো মাথা ব্যথা নেই। ডাক্তাররাও বলছেন এভাবে থাকলে তিনি প্যারালাইজড হয়ে যেতে পারেন তার স্মৃতিশক্তি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। কিন্তু সরকার এসব বিষয়ে কোনো কর্ণপাত করছে না। ’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘গত ৪ মে তাঁর পরিবার সর্বশেষ দেখা করতে পেরেছেন। এরপর বার বার চেষ্টা করার পরও সরকার দেখা করার সুযোগ দিচ্ছে না। তাই তাঁর স্বাস্থের বিষয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। সরকারের কাছে আহ্বান জানাবো বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ মতে তাঁকে যেন উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। আমরা বেগম জিয়ার খবর নেয়ার চেষ্টা করেছি কিন্তু ব্যর্থ হয়েছি। আমরা তাঁর বিষয়ে খুবই উদ্বিগ্ন, তিনি কেমন আছেন কি অবস্থায় আছেন সে বিষয়ে আমরা কিছুই জানতে পারছি না। তাই সরকারের কাছে অনুরোধ পরিবারকে যেন দেখা করতে দেয়া হয়।’

তিনি বলেন, ‘৩ মাস খালেদা জিয়া কারাগারে, প্রথমবার আমরা যখন তাঁর সাথে দেখা করতে যাই তখন তিনি ভিজিটিং রুমে এসে দেখা করতেন। এখন তাঁর শরীর এত খারাপ যে তিনি ভিজিটিং রুমে আসতে পারেন না তাই আমাদের সাথে সাক্ষাৎ বাতিল করা হয়েছে।’

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x