ভোট থেকে দূরে রাখতেই খালেদা জিয়াকে জামিন দেয়া হচ্ছে না: মওদুদ আহমদ

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ নির্বাচন থেকে দূরে রাখতেই বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে জামিন দেয়া হচ্ছে না বলে দাবি করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ।হাইকোর্টে খালেদা জিয়াকে দেয়া জামিনের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগের শুনানি চলাকালে মঙ্গলবার সাংবাদিকদেরকে এই কথা বলেন বিএনপি-জামায়াত জোট আমলের আইনমনন্ত্রী মওদুদ।গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে দেয়া পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের আদেশের পর রায়ের বিরুদ্ধে আপিল ও জামিন আবেদন একই সঙ্গে করা হয়।

১২ মার্চ বিএনপি চেয়ারপারসনকে চার মাসের জামিন দেয় হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ। এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ এবং দুদক। এই আবেদনের ওপরই শুনানি হয় আজ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনসহ আপিল বেঞ্চে এই শুনানি চলে। শুনানি শেষ না হওয়ায় বুধবার আবার শুনানির আদেশ এসেছে।

সাংবাদিকদের মওদুদ বলেন, ‘আগামী নির্বাচন থেকে দূরে রাখতেই বেগম জিয়াকে জামিন দেয়া হচ্ছে না। তাঁর জনপ্রিয়তার কারণে মিথ্যা মামলায় আজ তিনি জেলে।নানা রকম কলা কৌশল করে আগামী নির্বাচনে খালেদা জিয়াকে নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রাখার জন্য সরকার এসব করছে। আজকের এই শুনানির লক্ষ্যও সেটাই।’

‘আগামী নির্বাচনে নিজেদের পরাজয়ের হাত থেকে রক্ষার জন্য বেগম জিয়াকে কীভাবে কারাগারে রাখা যায় সে চেষ্টাই তারা (সরকার) করছে। তারা চাইছে যতদিন সম্ভবপর তাকে কারাগারে রাখা যায়।বেগম জিয়ার সামাজিক অবস্থান এবং বয়সের কথা বিবেচনা করে মাননীয় আদালত তাঁকে জামিন দেবেন বলে আমরা আশাবাদী।’

শুনানিতে অ্যাটর্নি জেনারেল খালেদা জিয়ার জামিনের বিরোধিতা করে বলেন, এই মামলার পেপার বুক তৈরি হয়ে গেছে। কাজেই এখন জামিন না দিয়ে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল শুনানি হোক।খালেদা জিয়া বিচারিক আদালতে নানা অযুহাতে মামলাটি নয় বছর টেনে নিয়েছেন বলেও আদালতকে জানান মাহবুবে আলম।

রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তার এই বক্তব্যের বিষয়ে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘অ্যাটর্নী জেনারেল পেপারবুকের বিষয়ে যে কথা বলেছেন তা অপ্রসাঙ্গিক। পেপারবুকের সঙ্গে জামিনের কোনো সম্পর্ক নেই। এ মামলাটা এই পর্যায়ে কেন এসেছে? কেন এই শুনানি হচ্ছে। এর একটি মাত্র কারণ, তা হলো খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তা। খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তায় আজকে সরকার ভীত।’

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x