গাজীপুর-খুলনা সিটি নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ  আন্দোলনের অংশ হিসেবে আসন্ন গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বোরবার রাতে চেয়ারপারসনের গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য, ভাইস চেয়ারম্যান, উপদেষ্টা এবং যুগ্ম মহাসচিবদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় বলে জানান তিনি। ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আমরা অংশগ্রহণ করবো। যদিও আমরা মনে করি যে, দেশে কোন গণতান্ত্রিক পরিবেশ নেই। নির্বাচন করবার মত কোন পরিবেশ নেই। আজকে বিরোধী দলকে তাদের সাংবিধানিক যে অধিকারগুলো ‘তাদের সভা- সমাবেশ করা, জনগণের কাছে যাওয়া’ প্রয়োগ করতে দেয়া হচ্ছে না।

এই ধরণের নির্বাচন কতটুকু কার্যকরি হবে এবং কতটুকু বিরোধী দলকে করতে দেয়া হবে, সেই বিষয়ে সন্দেহ রয়েছে। এরপরও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে অব্যাহত রাখার জন্য এবং জনগণের যে অধিকার সেই অধিকারকে প্রয়োগ করবার সুযোগ দেওয়ার জন্য এই নির্বাচনে আন্দোলনের অংশ হিসেবে আমরা অংশগ্রহণ করবো।

তিনি বলেন, আমাদের দেশের সবচেয়ে বড় নেতা এবং গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় নেত্রী খালেদা জিয়াকে আজকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে আটক রাখা হয়েছে। তার (খালেদা জিয়া) মুক্তির আন্দোলনকে আরো বেগমান করার জন্য এবং তাকে মুক্ত করবার জন্য এ নির্বাচনকে আন্দোলনের অংশ হিসেবে আমরা নিবো বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

দুই সিটি নির্বাচনে প্রার্থী ঠিক হয়েছে কি না- এ প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রার্থী এখনো ঠিক হয়নি। আমাদের স্থায়ী কমিটির সদস্য যারা আছেন তারা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাথে পরামর্শ করে এবং সকল নেতাদের সাথে কথা বলেই প্রার্থী ঘোষণা করা হবে।

প্রায় আড়াই ঘন্টা ব্যাপী এ বৈঠকে তারেক রহমানও বক্তব্যে রেখেছেন জানিয়ে তিনি বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আমাদের বিভিন্ন দিক- নির্দেশনা দিয়েছেন। আর সিটি নির্বাচনে অংশগ্রহণের ব্যাপারে তার মতামত তিনি জানিয়েছেন।

এছাড়া বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মামলা, আন্দোলন, জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, আগামী ১৫ মে গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হবে।

বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, ড. মঈন খান, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, মো. শাহজাহান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, বরকত উল্লাহ বুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, জয়নুল আবেদীন ফারুক, হাবিবুর রহমান হাবিব, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স, শামা ওবায়েদ, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x