একটি ভাষণ ও বিশ্ব শ্রোতা

Posted on by

গত ২৬শে মার্চ, ২০১৮ ছিল এক অবিস্মরণীয় দিন। বাংলাদেশের ৪৭তম স্বাধীনতা দিবসে পূর্ব লন্ডনের রয়েল রিজেন্সি হল থেকে পৃথিবীর আনাচে কানাচে পৌঁছে গেলে এক কণ্ঠস্বর, এক দৃপ্ত শপথ। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন, দেশনায়ক জনাব তারেক রহমানের বক্তব্য সারা বিশ্বে কোটি কোটি শ্রোতা একই সময়ে একই সাথে উপভোগ করে তৈরী করলেন এক ঐতিহাসিক ঘটনা। পূর্ব লন্ডনের কানায় কানায় পূর্ণ এই হলে একসাথে প্রায় ১৫০০ শ্রােতা  এই ভাষণটি তাদের মোবাইল থেকে ফেইসবুকের মাধ্যমে  সরাসরি প্রচার করে। ফলে প্রতিটি মানুষের মোবাইল থেকে গড়ে আরো ৩০০০ শেয়ার এর মাধ্যমে গড়ে আরো ৩০০০ মানুষ এই বক্তব্য সরাসরি দেখতে পায়। সেই হিসাবে শুধুমাত্র ফেইসবুক লাইভ -এ মোট দর্শকের সংখ্যা দাঁড়ায় ৯০ লক্ষ (৯ মিলিয়ন)। ফলে সারা বিশ্বে ফেইসবুকের Bandwidth-এর গতি শ্লথ হয়ে যায়। তাছাড়া প্রায় ১০ টি অনলাইন মিডিয়ার মাধ্যমে প্রায় এক কোটি ২০ লক্ষ মানুষ এই ভাষণ উপভোগ করেন। বাংলাদেশের বাইরে একমাত্র রেডিও “বেতার বাংলা” দেশনায়ক তারেক রহমানের এই গুরুত্বপূর্ণ ভাষণটি ১৫০৩ এএম ব্যান্ড- এ সরাসরি সম্প্রচার করে। ফলে ব্রিটেনে বসবাসকারী কয়েক লক্ষ শ্রোতা এই ভাষণটি শুনতে পান। শুধু তাই নয়, বেতার বাংলা অনলাইন এ শ্রোতার সংখ্যা দাঁড়ায় ১০ লক্ষ। সব কিছু হিসাব করলে দেশনায়ক জনাব তারেক রহমানের ৪৫ মিনিটের এই গুরুত্বপূর্ণ ও দিকনির্দেশনা পূর্বক ভাষণ বাংলাদেশ সহ সারা বিশ্বে বিভিন্ন মিডিয়ার মাধ্যমে ৩ কোটি মানুষের উপরে সরাসরি উপভোগ করে এক অনন্য নজির স্থাপন করেন যা বিশ্ব ইতিহাসে একটি বিরল ঘটনা।

More News from আন্তর্জাতিক

More News

Developed by: TechLoge

x