ইসি কর্মকর্তাদের ‘পরিণতির ভয়’ : বিএনপি

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ আওয়ামী লীগ নেতারা ভোট চেয়ে ‘নির্বাচনী আইন ভঙ্গ’ করলেও চাকরি হারানোর ভয়ে নির্বাচন কমিশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এই বিষয়ে কোনো কথা বলছে না বলে দাবি করেছে বিএনপি।রোববার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি করে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সরকারের মন্ত্রী থেকে শুরু করে আওয়ামী নেতারা নির্বাচনকে সামনে রেখে সকল নিয়ম-নীতি, নির্বাচনী বিধি-বিধান উপেক্ষা করে রাষ্ট্রীয় খরচে ইতোমধ্যে কোমর বেঁধে নির্বাচনী প্রচারাভিযানে নেমে পড়েছেন।’

‘নির্বাচনী আইন ভঙ্গ করে প্রধানমন্ত্রীর এই একতরফা নির্বাচনী প্রচারের বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করলেও সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে নির্বাচন কমিশন সচিবের বক্তব্য। তিনি বললেন, তফসিল ঘোষণার আগে এ নিয়ে কমিশনের কিছু করার নেই।করার থাকবে কেন? কিছু করার থাকলে তো কমিশনের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের পরিণতি হবে প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার মতো। চাকরি হারানোর ভয়ে নির্বাচন কমিশন প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী আচরণ বিধি ভঙ্গের ব্যাপারে নিশ্চুপই থাকতেই হবে।’, বলেন বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব।

সরকার এক তরফা নির্বাচন আয়োজনের জন্য চক্রান্ত করে খালেদা জিয়াকে কারাগারে নিয়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘আইনকে আওয়ামীকরণ করে দেশনেত্রীকে নির্বাচন থেকে দুরে রাখার পাঁয়তারা করছে সরকার। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপি নির্বাচনী মাঠে থাকলে তো শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ কঠিন অস্তিত্ব সংকটে পড়বে। সেজন্যই তাকে আটকাতে এই সরকার নানামুখী কারসাজিতে লিপ্ত রয়েছে।তবে আমরা আবারো সুষ্পষ্টভাবে বলতে চাই-দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে ছাড়া বাংলাদেশে কোনো নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না। আওয়ামী একতরফা নির্বাচনের বিজয় মুকুট জনগণ ধুলোয় লুটিয়ে দেবে।সরকার নির্বাচনী মাঠ অসমতল রাখার জন্য দেশব্যাপী বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের গ্রেপ্তার করে নির্যাতন করছে বলেও এ সময় অভিযোগ করেন রিজভী।

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x