একযুগ পর হেলিকপ্টারে নিজ এলাকায় বিএনপির সাবেক এমপি মণি

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ দীর্ঘ একযুগ পর নিজ এলাকায় আসলেন বরগুনা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম মণি। শুক্রবার দুপুরের দিকে গ্রামের বাড়ির সামনে বাবার নামে নিজের প্রতিষ্ঠিত মাজহার উদ্দিন টেকনিক্যাল এন্ড বিজনের ম্যানেজমেন্ট কলেজের মাঠে হেলিকপ্টারে অবতরণ করেন তিনি।নুরুল ইসলাম মণির ছোট ভাই রফিকুল ইসলাম শাহাজানের মৃত্যূতে তার জানায় অংশ নেয়ার জন্য ঢাকা থেকে আসেন তিনি। দুপুর ১২টার দিকে পিতার বসত বাড়ির সামনের মাঠে তার ভাইয়ের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। দাফন শেষে হেলিকপ্টার যোগে আবার ঢাকায় চলে যান সাবেক এই এমপি।
এদিকে দীর্ঘ ১ যুগ পরে নিজ নির্বাচনী এলাকায় আসায় একদিকে যেমন ভাইয়ের মৃত্যূরে হৃদয় বিদারক দৃশ্যে পরিণত হয়েছে, অন্যদিকে এক পলক দেখার জন্য উৎসুক মানুষের ভিড়ও দেখা গেছে চোখে পড়ার মতো। এছাড়াও এই হেভিওয়েট সাবেক সাংসদ নিজ গ্রামের বাড়িতে আসায় রাজনৈতিক অঙ্গণে নতুন মেরুকরণ যোগ হয়েছে এবং সাধারণ মানুষের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়াও সৃষ্টি হয়েছে।বিএনপির নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক নেতাদের দাবি, এক যুগ পরে হলেও নুরুল ইসলাম মণি এলাকায় আসাতে রাজনীতিতে নতুন মেরুকরণ শুরু হয়েছে। এলাকায় নতুন করে মণি পন্থিসহ বিএনপি দলের নেতাকর্মীদের মাঝে নতুন রাজনীতি শুরু হয়েছে।২০০৬ সালের এক আগারোর আগে সংসদ নির্বাচন স্থগিত হওয়ার পর নিজ জন্মস্থান পাথরঘাটা ও নির্বাচনী এলাকা পাথরঘাটা, বেতাগী ও বামনা ছেড়ে যান সাবেক এই হেভিওয়েট সাংসদ নুরুল ইসলাম মণি। এক এগারোর পরবর্তীতে ত্রাণের টিন আত্মসাতসহ দুর্নীতির মামলায় আসামী হওয়ায় এলাকায় আসতে পারেনি। দীর্ঘ ১ যুগে পাথরঘাটা সাধারণ মানুষের খোজ খবর না নেওয়ায় জনগণের মাঝে নানা প্রতিক্রিয়ার জন্ম নেয়।বিএনপির সাবেক সাংসদ নুরুল ইসলাম মণি বলেন, আমাকে জনগণ ভালো বাসেন, তার প্রমান আজকে আমাকে দেখতে এসেছেন অসংখ মানুষ। জনগণের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বিগত অনেক বছর আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন মিথ্যা মামলা থাকার কারণে এলাকায় আসতে পারিনি। আমাকে আসতে দেয়া হয়নি।

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x