মাম‌লা প্রত্যাহার না হ‌লে নির্বাচন কর‌তে দেবে না বিএনপি: মির্জা ফখরুল

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে করা মামলাকে রাজনৈতিক আখ্যা দিয়ে এসব মামলা প্রত্যাহার করা না হলে আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচন করতে দেবেন না বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সোমবার বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত অসহায়দের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, রাজনৈতিক মামলায় আমাদের নেতাকর্মীরা জেলের ভেতরে থাকবে, আর আপনারা নির্বাচন করবেন তা হবে না। বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে করা রাজনৈতিক মামলা প্রত্যাহার না হলে নির্বাচন করতে দেয়া হবে না। নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ তৈরি করতে হবে।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান ছিলেন আধুনিক বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা। তিনি বাংলাদেশকে তলাবিহীন ঝুড়ি থেকে বের করে এনে সমৃদ্ধশালী করেছিলেন। সরকার উন্নয়নের নামে লুটপাট করছে বলেও অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে যেখানে সপ্তাহে তিন থেকে চার দিন আদালতে যেতে হবে আর প্রধানমন্ত্রী হেলিকাপ্টারে চড়ে ভোট চেয়ে বেড়াবেন সেখানে সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না।

দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, মিথ্যা মামলা দিয়ে বিরোধী রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের কারাগারে রেখে দেশে কোনো নির্বাচন হবে না। মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। নির্বাচনের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করতে হবে।

সরকারের উন্নয়ন কর্মসূচির কঠোর সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, বর্তমান সরকার সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থ। তাদের উন্নয়ন শুধু একটি গোষ্ঠীর জন্য। আর সে গোষ্ঠী তারা, যারা ধনী। তারাই আরও ধনী হচ্ছে। এমন তাদের উন্নয়ন যে আজ ঢাকায় গাড়ি চলে না। ঘণ্টার পর ঘণ্টা পথেই বসে থাকতে হয়।

ফখরুল বলেন, আমাদের কথা পরিষ্কার, বর্তমান রাজনৈতিক সঙ্কট নিরসনে নির্বাচন চাই। তবে সেই নির্বাচন হতে হবে অতিদ্রুত নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। যে নির্বাচনে দেশের মানুষ তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে। আমাদের যে ভোটাধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে তা ফিরিয়ে আনতে সবাইকে জেগে উঠতে হবে। সজাগ হতে হবে।

মহিলা দলের প্রসংশা করে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে মহিলা দল এগিয়ে চলছে। মহিলা দলই একমাত্র সংগঠন যারা শত প্রতিকূলতার মাঝেও প্রতিটি সাংগঠনিক জেলা সফর করে কাউন্সিল করতে পারছে। এমনকি ঢাকায় যে সমস্ত কর্মসূচি পালিত হয় তাতেও পিছিয়ে নেই মহিলা দল।

এ সময় মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, সিনিয়র সহ সভাপতি নুরজাহান ইয়াসমিন, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খানসহ মহিলাদলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x