রিটের বিরুদ্ধে আপিল কেন হলো না, প্রশ্ন মওদুদের

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচন স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ কেন আপিল করেনি, সেই প্রশ্ন তুলেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ।একই সঙ্গে এই রিটের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনের আইনজীবী  ও অ‌্যাটর্নি জেনারেলের ভূমিকা নিয়ে সমালোচনা করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস‌্য।শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে তিনি ডিএনসিসি নির্বাচনের স্থগিতাদেশের বিষয়ে এ কথা বলেন। জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) ছাত্র সংগঠন জাগপা-ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এর আয়োজন করা হয়।মওদুদ আহমদ বলেন, ঢাকার দুটি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে উচ্চ আদালতের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ কেন আপিল করল না? আপিল না করায় এটা প্রমাণ হয়েছে, নির্বাচন কমিশন ও সরকারের যোগসাজশে এই নির্বাচন করা হচ্ছে না।

তিনি বলেন, সরকার যদি সত্যিই নির্বাচন চাইতো, তাহলে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করত। সরকার ও নির্বাচন কমিশনের এমন একটা ভাব, যে স্থগিতাদেশ একটা স্থায়ী বিষয়, এর বিরুদ্ধে যেন আপিল করা যায় না। আপিল করলে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত হয়ে যেত। ফলে নির্বাচন হতো। অথচ দুই পক্ষই এখন হাত-পা গুটিয়ে বসে আছে।নির্বাচনে পরাজয়ের ভাবনা থেকেই স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে আপিল করা হচ্ছে না বলে মনে করেন মওদুদ।নির্বাচন নিয়ে উচ্চ আদালতের স্থগিতাদেশে রাষ্ট্রের আইনজীবী অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন বিএনপির এই নেতা।

‘এত গুরুত্বপূর্ণ একটা মামলার শুনানি হল। প্রথম দিন অ্যাটর্নি জেনারেল আসলেন না। তার পরের দিন আদেশের জন্য যখন মামলা ওঠল, অ্যাটর্নি জেনারেল তখনো আসলেন না। এর অর্থ কী? এর অর্থ হল, সরকার চেয়েছে, স্থগিতাদেশ দিয়ে দিক। এজন্যই অ্যাটর্নি জেনারেল যাননি।জাগপা-ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় জাগপা সভানেত্রী রেহানা প্রধান, সহসভাপতি তাসমিয়া প্রধান, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান প্রমুখ বক্তব্য দেন।

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x