বিজয় দিবসে চালু হলো রাইড শেয়ারিং সার্ভিস ‘ডাকো’

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ রাইড শেয়ারিং সার্ভিস ‘ডাকো’ এক যোগে চালু হলো ঢাকা এবং চট্টগ্রামে। কার/বাইক সেবা পাওয়া যাবে ‘ডাকো’তে। অনলাইনে এবং অফলাইনে প্রায় ৮ মাস ধরে গাড়ী মালিক, চালক এবং যাত্রীদের নানা মতামত ও পরামর্শে সমৃদ্ধ হয়েছে সার্ভিসটি। অবশেষে বিজয় দিবসে সবার জন্য উন্মোচন হলো ডাকো’র দুয়ার!

‘ডাকো’তে রয়েছে বৈচিত্র্যময় বেশ কিছু ফিচার। বিশেষ করে যাত্রীদের জন্য- ফিউচার রাইডের ব্যবস্থা, অফিসে বসে যেকোন জায়গায় থাকা ফ্রেস এ- ফ্যামিলি মেম্বারদের জন্য কার/বাইক ঠিক করে দেয়া, রিয়েল টাইম লকিং রাইড সিস্টেম, বিশেষ সময়ের জন্যে সিকিউরিটি নাম্বার সেট, কার/বাইক উভয় ক্ষেত্রেই ডাকো এবং ডাকো প্রাইম-দুধরনের গাড়ীতে রাইড নেয়ার সুবিধাসহ আরো বেশ কিছু নতুন ফিচার রয়েছে ‘ডাকো’তে। ডাকোর ভাড়া দুই ধরনের- এস্টিমেটেড এবং ফিক্সড। এস্টিমেটেড ভাড়া অ্যাপে দেখানো ভাড়া থেকে সামান্য কম বা বেশী হতে পারে। অন্যদিকে ভাড়ার চিন্তা না করে যেতে চাইলে ফিক্সড ভাড়ায় যেতে পারেন। ডাকো’র ভাড়া প্রতি কিলোমিটার- বাইক ৭ টাকা [ডাকো], ৯ টাকা [ডাকো প্রাইম] এবং কারের ক্ষেত্রে ১৪ টাকা [ডাকো] এবং ১৭ টাকা [ডাকো প্রাইম]। তবে পরিবেশ, পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে যেকোনও সময় এ ভাড়ায় কম-বেশী হতে পারে।

অন্যদিকে, কার/বাইক মালিকদের জন্যে ২৪ ঘণ্টা ট্রিপ নিশ্চিত করতে ‘ডাকো’তে শুধু কলের জন্য বসে থাকতে হবে না। ‘ডাকো’র ক্যাপ্টেনরা [চালক] কলের জন্যে অপেক্ষা না করে ‘রেডি টু রাইড’ অপশনের মাধ্যমে ইচ্ছে মতো রুটে ট্রিপ দিতে পারবেন। গাড়ীর কোয়ালিটি অনুযায়ী আলাদা ভাড়া পাবেন। আয় বাড়াতে বোনাস সুবিধা, কোন কোন এলাকায় বেশী ট্রিপ পাওয়া যাবে এবং কোন এলাকায় কখন ট্রিপ দিয়ে অতিরিক্ত আয় করা যাবে, তার আগাম আপটুডেট নির্দেশনাও দেবে ‘ডাকো’।
নিরাপত্তার জন্য বিশ্বের যেকোন জায়গায় বসে কার/বাইক মালিক তার গাড়ীটি কোথায় চলছে, কত টাকা আয় হচ্ছে এবং গাড়ী কি অবস্থায় আছে লাইভ দেখাসহ আরো নানা সময়োপযোগী ফিচার উপভোগ করতে পারবেন। মোটকথা, ‘ডাকো’ দেবে নিরাপদ ও সর্বাধিক আয়ের নিশ্চয়তা।

যেভাবে কার/বাইক মালিক একাউন্ট খুলে আয় শুরু করবেন
প্রথমেই ‘ডাকো’তে একাউন্ট খুলুন। এখানে একাউন্ট খোলার প্রক্রিয়া খুবই সহজ। গাড়ীর পেপারস তৈরি থাকলে আপনি নিজেই ৩০/৪০ সেকেণ্ডের মধ্যে একাউন্ট খুলতে পারবেন। চালকদের জন্য ‘ডাকো ক্যাপ্টেন’ (DAKO CAPTAIN) অ্যাপসটির প্লে স্টোর থেকে ইন্সটল করে কার/বাইকের পেপারস সাবমিট করে দিন, বাকী কাজ করবে ডাকো টিম।
ট্রিপ দিতে চাইলে যখন সময় হবে, ‘ডাকো’ অ্যাপসটি অনলাইন মুডে রাখুন। অ্যাপসে ‘ডাকো’ কর্তৃক ভেরিফাই করা যাত্রী নিদিষ্ট গন্তব্যে যাওয়ার জন্যে রিকোয়েস্ট পাঠাবে। যেতে চাইলে রিকোয়েস্টটি একসেপ্ট করবেন। যাত্রীকে নিদিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছানোর পর আপনার অ্যাপসে ভাড়া কত হলো তা শো করবে। পুরো টাকাই থাকবে ক্যাপ্টেন’এর কাছে। ‘ডাকো’ নিদিষ্ট সময় পর আয় করা টাকার উপর স্বল্প পরিমাণে একটি কমিশন নেবে।

‘ডাকো’তে চলছে বিজয় দিবসের বিশেষ ক্যাম্পেইন
বিজয় দিবস উপলক্ষে ডিসেম্বরের ৩১ তারিখ পর্যন্ত ডাকো’তে চলছে বিশেষ ক্যাম্পেইন। একাউন্ট খুললেই নিশ্চিত পাবেন কার প্রতি ১৫,০০০ টাকা এবং বাইক প্রতি ১০,০০০ টাকা। প্রথম ৫০০ কার/বাইকের জন্যে বিশেষ এই ওপেনিং বোনাস পাওয়ার সুযোগ থাকবে।

যেভাবে যাত্রী হিসেবে রাইড নেবেন
যাত্রী হিসেবে রাইড নিতে গুগল প্লে স্টোরে ‘ডাকো রাইড’ [DAKO RIDE] লিখে সার্চ দিন। ডাকো রাইড অ্যাপসটি আপনার মোবাইলে ইন্সটল করুন। এরপর আপনার মোবাইল নাম্বারটিকে ভেরিফাই করেই অ্যাপসে ঢুকে পড়ুন। শুরুতেই নির্বাচন করুন কার/বাইক- কোন গাড়ীতে চড়বেন। তারপর কোথায় যাবেন তা সিলেক্ট করলে ডাকো এবং ডাকো প্রাইম, দুধরনের ভাড়া দেখাবে। পছন্দমতো গাড়ী নির্বাচন করে স্বাদ নিন ‘ডাকো’ রাইড-এর। রাইড শেষে স্টার দিয়ে আপনার মতামত জানাতে পারেবেন। সমস্যা হলে ‘ডাকো’তে রিপোর্ট করতে পারবেন।

যাত্রী কিংবা কার/বাইক ওনার সবার মতামত কিংবা সমস্যা শোনার জন্য ‘ডাকো’ কাস্টমার কেয়ার নাম্বার : ০১৯০৪ ৯৯৯ ১১১।

More News from প্রযুক্তি

More News

Developed by: TechLoge

x